প্রজাতন্ত্র দিবস রচনা | Republic Day Essay PDF in Bengali

প্রজাতন্ত্র দিবস রচনা | Republic Day Essay Bengali PDF Download

প্রজাতন্ত্র দিবস রচনা | Republic Day Essay in Bengali PDF download link is given at the bottom of this article. You can direct download PDF of প্রজাতন্ত্র দিবস রচনা | Republic Day Essay in Bengali for free using the download button.

প্রজাতন্ত্র দিবস রচনা | Republic Day Essay Bengali PDF Summary

Dear readers, here we are going to provide প্রজাতন্ত্র দিবস রচনা PDF / Republic Day Essay PDF in Bengali to help the students. The students from class 2nd to 8th can read and write Essay on Republic Day in Bengali language. Every year 26 January is celebrated as Republic Day in India. In the year 2022 i.e. this year the country is celebrating its 73rd Republic Day.
আজ আমরা কথায় কথায় পৃথিবীর বৃহত্তম গণতন্ত্র হিসেবে নিজেদের চিহ্নিত করে গর্ব অনুভব করে থাকি। কিন্তু সেই বৃহত্তম গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার প্রাণভোমরার জন্মদিন অর্থাৎ প্রজাতন্ত্র দিবস নিয়ে আলোচনা তুলনামূলকভাবে কমই হয়। ২৬ জানুয়ারি এই দিনটি ভারতবর্ষের স্বাধীনতা দিবসের মতোই একটি গুরুত্বপূর্ণ দিন। এই দিনটিকে কেন্দ্র করেই আমাদের আজকের বিষয় প্রজাতন্ত্র দিবস রচনা।

প্রজাতন্ত্র দিবস রচনা PDF | Republic Day Essay PDF in Bengali

ভূমিকা:

আমাদের জন্মস্থান এই মহান দেশ ভারতবর্ষ। ইতিহাসের নানা গৌরবগাথা, নানা কলঙ্কজনক অধ্যায় পেরিয়ে, বহু অত্যাচার সয়ে বহু সংগ্রাম করে আজ আমাদের সকলের প্রিয় এই দেশ বিশ্বের দরবারে একটি সম্মানীয় তাৎপর্যপূর্ণ স্থান অধিকার করে রয়েছে।
কিন্তু ভারতবর্ষ বর্তমান পৃথিবীর আন্তর্জাতিক মঞ্চে আজকে যে স্থান অধিকার করে আছে তার যাত্রা শুরু হয়েছিল ঠিক যেই দিন তার কথা সকল দেশবাসীর বারবার স্মরণ করা দরকার। সেটি হল আমাদের দেশের গৌরবময় প্রজাতন্ত্র দিবস। আজ আমরা কথায় কথায় পৃথিবীর বৃহত্তম গণতন্ত্র হিসেবে নিজেদের চিহ্নিত করে গর্ব অনুভব করে থাকি। কিন্তু সেই বৃহত্তম গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার প্রাণভোমরার জন্মদিন অর্থাৎ প্রজাতন্ত্র দিবস নিয়ে আলোচনা তুলনামূলকভাবে কমই হয়।
স্বাধীনতা-উত্তর সময়ে গৌরবময় ভারতবর্ষে যে কয়েকটি দিনকে সবচেয়ে অধিক গুরুত্ব সহকারে পালন করা হয়ে থাকে তার মধ্যে অন্যতম প্রধান একটি হলো দেশের প্রজাতন্ত্র দিবস। প্রতিবছর জানুয়ারি মাসের ২৬ তারিখে সমগ্র দেশ জুড়ে এই দিনটি পালন করা হয়।

প্রজাতন্ত্র কি?

খুব প্রাসঙ্গিকভাবেই প্রজাতন্ত্র দিবস সম্বন্ধে আলোচনার সূচনা লগ্নে প্রশ্ন আসে প্রজাতন্ত্র আসলে কি? প্রকৃতপক্ষে পৃথিবীর ইতিহাসে রাজ্য বা দেশের শাসন পদ্ধতি বা ব্যবস্থার বির্বতনে আধুনিকতম হলো গণতান্ত্রিক পরিকাঠামো। একটি দেশের গণতান্ত্রিক পরিকাঠামোমূলক শাসন ব্যবস্থা বলতে বোঝায় জনগণের দ্বারা জনগণের জন্য জনগণের শাসন ব্যবস্থা।
এই গণতান্ত্রিক পরিকাঠামোমূলক রাষ্ট্রব্যবস্থার শীর্ষে যিনি অধিষ্ঠান করেন আমাদের দেশে তার স্থান বংশপরম্পরায় নির্ধারিত হয় না। বরং তিনি এই দেশের জনগণের মতানুসারে পরোক্ষভাবে নির্বাচিত হয়ে থাকেন। গণতন্ত্রের শীর্ষস্থানীয় অধিষ্ঠানকে নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষেত্রে প্রজা অর্থাৎ জনগণের এই বিশেষ ভূমিকাকেই প্রজাতন্ত্র বলা হয়।
‘তন্ত্র’ শব্দটিকে এই ক্ষেত্রে ‘মত’ অর্থে ব্যবহার করা হয়ে থাকে। অর্থাৎ রাজতন্ত্র বলতে যেমন বোঝানো হয় রাজার ‘মত’ তেমনই প্রজাতন্ত্র বলতে বোঝানো হয়ে থাকে প্রজার ‘মত’। অর্থাৎ ভারতবর্ষে প্রজাতন্ত্র বলতে বোঝানো হয় এই দেশে প্রজার মতই শাসনের ক্ষেত্রে শেষ কথা বলবে।

পরাধীন ভারত ও জনমত:

আধুনিক পৃথিবীতে স্বাধীনতার আলো দেখবার পূর্বে ভারতবর্ষের একটি দীর্ঘ লাঞ্ছনার ইতিহাস রয়েছে। ব্রিটিশ সাম্রাজ্যবাদী শক্তি দীর্ঘ ১৯০ বছর ভারতীয়দের পরাধীনতার শৃঙ্খলে বন্দি করে রেখেছিল। ভারতে বর্তমান প্রজাতন্ত্রের উৎস এবং অনুপ্রেরণা খুঁজতে গেলে সেই দীর্ঘ লাঞ্ছনার ইতিহাসের দিকে আমাদের চোখ ফেরাতে হবে। মানুষের জীবনের সবচেয়ে অত্যাবশ্যক অধিকার হলো মত প্রকাশের স্বাধীনতা। প্রায় দুই শতক ধরে চলতে থাকা ব্রিটিশ শাসন ভারতীয়দের সেই স্বাধীনতাই বহুক্ষেত্রে খর্ব করেছিল।
নিজেদের শাসন ব্যবস্থা সংক্রান্ত নীতি নির্ধারণের ক্ষেত্রে বহুদিন পর্যন্ত ভারতীয়দের কোন মত প্রকাশের অধিকার ছিল না। সেই কারণেই যখনই পরাধীন ভারতবর্ষে কোন সমষ্টিগত জনমত গড়ে উঠেছে, তখনই তার বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে কোন না কোন বিদ্রোহ কিংবা আন্দোলনের মাধ্যমে। ব্যক্তিগত মত প্রকাশের স্বাধীনতার ওপর চূড়ান্ত বিদেশি হস্তক্ষেপ ভারতবর্ষের মানুষের মতামত প্রকাশের স্পৃহাকে বহুমাত্রায় বাড়িয়ে তুলেছিল। সম্ভবত তারই অনিবার্য ফল হল আজকের প্রজাতান্ত্রিক ভারতবর্ষ।

প্রজাতন্ত্র দিবসের ইতিহাস:

১৯৪৬ খ্রিস্টাব্দে যখন ব্রিটিশ সরকার ভারতকে স্বাধীনতা দানের কথা ঘোষণা করে তখন ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের নেতৃত্বে প্রথমে একটি অস্থায়ী কেন্দ্রীয় সরকার এবং ১৯৪৭ সালে স্বাধীন ভারতবর্ষের একটি সংবিধান তৈরির উদ্দেশ্যে সর্বস্তরের নেতৃবৃন্দকে নিয়ে একটি গণপরিষদ গঠিত হয়।
এই গণপরিষদের সভাপতিত্ব করেছিলেন ডঃ রাজেন্দ্র প্রসাদ এবং সংবিধানের খসড়া কমিটির সভাপতিত্ব করেন ডঃ বি আর আম্বেদকর যিনি বাবাসাহেব আম্বেদকর নামেও সুপরিচিত। অবশেষে ১৯৪৯ সালের ডিসেম্বর মাস নাগাদ সংবিধান তৈরির কাজ শেষ হয়ে ২৬শে ডিসেম্বর এই সংবিধানটি ভারতীয় সংসদে সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হয়। তার ঠিক এক মাস পরে ২৬শে জানুয়ারি সমগ্র দেশে এই সংবিধান লাগু হয়ে যায়।
Here you can download the প্রজাতন্ত্র দিবস রচনা PDF / Republic Day Essay PDF in Bengali by click on the link given below.

প্রজাতন্ত্র দিবস রচনা | Republic Day Essay pdf

প্রজাতন্ত্র দিবস রচনা | Republic Day Essay PDF Download Link

REPORT THISIf the download link of প্রজাতন্ত্র দিবস রচনা | Republic Day Essay PDF is not working or you feel any other problem with it, please Leave a Comment / Feedback. If প্রজাতন্ত্র দিবস রচনা | Republic Day Essay is a copyright material Report This. We will not be providing its PDF or any source for downloading at any cost.

Leave a Reply

Your email address will not be published.